পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহারে পালন করা হলো বিশ্ব মেডিটেশন দিবস

আপডেট: মে ২৩, ২০২২, ৯:১৮ অপরাহ্ণ

নওগাঁ ও বদলগাছী প্রতিনিধি:


শনিবার (২১মে) বিশ্ব মেডিটেশন দিবস। সারা বিশ্বে দ্বিতীয়বারের মতো পালন করা হলো বিশ্ব মেডিটেশন দিবস। তারই ধারাবাহিকতায় কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন নওগাঁ শাখা দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করে। কর্মসূচির প্রধান আকর্ষন ছিলো রোববার (২২ মে) জেলার বদলগাছীর তীর্থস্থান ঐতিহাসিক সোমপুর বিহারে (পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার) শতাধিক মানুষ মেডিটেশনে অংশগ্রহণ করে দিবস পালন করেন। মেডিটেশনে অংশ গ্রহণ করেন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা হাবিব রতন, কিশোর লাইব্রেরীর স্বত্বাধিকারী কামাল হোসেনসহ ফাউন্ডেশনের ছোট-বড় শতাধিক সদস্য।

দিবস উপলক্ষ্যে উত্তরাঞ্চলের সকল সেন্টার/শাখা/সেল/প্রি-সেলে আয়োজন করে বিভিন্ন কর্মসূচি। এর মধ্যে ছিল সচেতনামূলক ডকুমেন্টি প্রর্দশন, মেডিটেশন সংক্রান্ত বই ও বুলেটিন বিতরণ, মেডিটেশন মেলা ও আলোচনা সভা স্ব-পরিবারে সংগঠনের সদস্য ও অসংখ্য শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ এই কর্মসূচিগুলোতে অংশগ্রহণ করে। কর্মসূচির শুরুতেই কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক নাহার আল বোখারী অনলাইনে যুক্ত হয়ে তার শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হাবিব রতন বলেন মেডিটেশন বা ধ্যান হল মনের ব্যায়াম। মিউটেশন শরীর ও মনকে শিথিল করে। মেডিটেশনের মাধ্যমে ব্যথা দূর হয়। সেজন্য মেডিটেশনকে বলা যেতে পারে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ নিরাপদ পেইন কিলার। বর্তমান সময়ে বলা হচ্ছে রোগ প্রতিরোধ শক্তি বৃদ্ধি তথা করনা প্রতিরোধে একটি বিশেষ কাযকরী অথচ খুবই সহজ শক্তিশালী অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে মেডিটেশন।

নিরবে বসে সুনির্দিষ্ট অনুশীলন বাড়ায় মনোযোগ, সচেতনতা ও সৃজনশীলতা, মনের ইচ্ছা নিয়ন্ত্রণ, ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি সৃষ্টি করে, প্রশান্তি ও সুখানভুমি বাড়ার পাশাপাশি ঘটায় অন্তর জাগ্রতি। সাধারণ চর্চা কিন্তু মানসিক প্রশান্তির জন্য অসাধারণ। উপকারের জন্য বাস্তবতা মেডিটেশনকে এখন ক্রমশ জনপ্রিয় করে তুলেছে।

বিষন্নতা দূর, ভয় মুক্তি, হতাশা মুক্তি, ইতিবাচক চিন্তার ক্ষমতা, রাগ নিয়ন্ত্রণ, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি, শারীরিক সুস্থ্যতা ও নিরাময়, মনে রাখার ক্ষমতা বৃদ্ধি, মনোযোগ বৃদ্ধি, অনলাইন আসক্তি বা যে কোনো আসক্তি থেকে মুক্তিসহ নানাবিধ উপকারিতায় ধ্যান বা মেডিটেশন এখন বাংলাদেশসহ বিশ^ জুড়ে চিকিৎসার মুল ধারায় অর্šÍভুক্ত হয়েছে।