শিবগঞ্জ পৌর মেয়রের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট: জুন ৫, ২০২০, ৮:৩০ অপরাহ্ণ

সফিকুল ইসলাম, শিবগঞ্জ:


সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন পৌরমেয়র এ আর আজরী এম কারিবুল হক রাজিন- সোনার দেশ

শিবগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নমূলক কাজে সন্ত্রাসী কার্যকলাপের মাধ্যমে বাধা সৃষ্টি করার প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলেন করেছেন শিবগঞ্জ পৌরমেয়র এ আর আজরী এম কারিবুল হক রাজিন।
শুক্রবার (৫জুন) দুপুরে শিবগঞ্জ পৌর মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে মেয়র রাজিন বলেন, সরকারি নীতিমালা মেনে পৌরসভা কার্যক্রম পরিচালনা এবং মহামারি করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ত্রাণ সঠিকভাবে বিরতণকালে পৌরসভার কাউন্সিলর জেমের উপর হামলা ও ত্রাণ ছিনিয়ে নেয়া চেষ্টা করেছে পৌর এলাকার কিছু মাদকসেবী, মাদক ব্যবসায়ীরা। পাশাপাশি পৌরসভা ও আমাকে নিয়েও বিভিন্ন রকম বিভ্রান্তিকর,ষড়যন্ত্রমূলক মানহানিকর অসত্য প্রচার করছে। এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে আমাদের জীবন ঝুঁকিতে রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, টেন্ডারের সরকারি আয়কর ৫% ভ্যাট ১৫% সোনালী ব্যাংক শিবগঞ্জ শাখায় জমা করা হয়। পাশাপাশি ইজারাকৃত টাকা রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে জমা দেয়া হয়। পৌরসভার স্বল্প আয় ও বিপুল পরিমাণ ব্যয় হওয়ায় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট দফতরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে পৌর এলাকায় বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। এর মধ্যে পৌর এলাকায় পণ্যভর্তি গাড়ি লোড আনলোডের ক্ষেত্রে ট্যাক্স নির্ধারণ হয়।
তিনি বলেন, ৭ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় দৈনিকে লোড-আনলোডের টেন্ডার বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ হয়। এতে সর্বোচ্চ দরদাতা জাহাঙ্গীর আলম প্রকাশ্যে ডাকের মাধ্যমে ২ লাখ ৭৭ হাজার ৭শ’ টাকা মূল্যে ১ বৈশাখ থেকে আগামী ৩০ চৈত্র (১৪২৭) সাল এক বছর মেয়াদে টোল আদায়ের দায়িত্ব পান।
তিনি বলেন, সারাদেশের পৌরসভাগুলো নিজ এলাকার মধ্যে পণ্যভর্তি গাড়ি থেকে টোল উঠিয়ে থাকে। এমনকি চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রহনপুর, নাচোল ও গোদাগাড়ী পৌরসভায় টোল আদায় করে থাকে। কিন্তু কিছু স্বার্থন্বেষী মহল এ উন্নয়ন কর্মকাণ্ড মেনে নিতে না পেরে মিথ্যা, ভিত্তিহীন অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। এছাড়া আমাকে ব্যক্তিগতভাবেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আক্রমনাত্মকভাবে গালিগালাজ অব্যহত রেখেছে। মিথ্যা অপপ্রচার চালাতে শ্রমিক সংগঠনের নাম ভাঙিয়ে মানববন্ধন করলেও শ্রমিক সংগঠন জানে না বলে জানিয়েছেন সভাপতি সফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের জিলানী।
এসম/য় তিনি বলেন, শুধু তাই নয় তাদের এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য আমিসহ আমার কাউন্সিলরবৃন্দ জীবন ঝুঁকিতে রয়েছে। পবিত্র রমজান মাসে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ত্রাণ বিতরণকালে আমার কাউন্সিলর জেমের উপর হামলা এবং ত্রাণ বিতরণে বাধা ও ত্রাণ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।
আজকের এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমের আপনাদের সহযোগিতায় উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা ও এই সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
এসময় প্যানেল মেয়র আবদুস সালাম, ২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাইনুল ইসলাম, ৪নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাদিকুল ইসলাম, কাউন্সিলর কাজিউজ্জামান বাবু, খাইরুল আলম জেমসহ নারী কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ট্রাক, টাংলোরী, কার্ভারভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের শিবগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি সফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের জিলানীসহ পৌরসভার বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারী, ঠিকাদার, ইজারাদার, ব্যবসায়ী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, অবৈধভাবে পণ্যভর্তি গাড়ি থেকে টোল আদায়ের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (৪ জুন) চাঁপাইনবাবগঞ্জ মটর শ্রমিক ইউনিয়নের ব্যানারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ মহাসড়কের রসুলপুর মোড়ে শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মী, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কয়েক যুবক মানববন্ধন করেছে বলে সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন।