সাবেক দুদক কর্মকর্তার মৃত্যু ঘনটায় ওসিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট: অক্টোবর ১৭, ২০২৩, ১২:২৭ অপরাহ্ণ

সৈয়দ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ। ফাইল ছবি

সোনার দেশ ডেস্ক :


চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও থানা পুলিশের হেফাজতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অবসরপ্রাপ্ত উপপরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহর (৬৪) মৃত্যুর ঘটনায় আদালতে মামলা হয়েছে হয়েছে। মামলায় চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. খাইরুল ইসলামসহ আরো ৮ জনকে আসামি করা হয়েছে।

নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইনে সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ বেগম জেবুননেছার আদালতে এ মামলাটি দায়ের করা হয়। সৈয়দ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহর স্ত্রী ফেজিয়া আনোয়ার বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে মামলাটি থানায় রেকর্ড করারও নির্দেশ দেন আদালত। বাদিপক্ষের আইনজীবী রেজাউল করিম চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার অন্য ৮ আসামি হলেন-চান্দগাঁও থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মবিনুল হক, এএসআই সোহেল রানা, এএসআই ইউসুফ, চান্দগাঁও থানা এলাকার বাসিন্দা এসএম আসাদুজ্জামান, মো. জসীম উদ্দিন, মো. লিটন, কলি আক্তার ও রনি আক্তার তানিয়া।

মামলার বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম চৌধুরী জানান, নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইনে চান্দগাঁও থানার ওসিসহ ৯ জনকে আসামি করে মামলার আবেদন করা হয়। অভিযোগের বিষয়ে আদালতে ত্রিশ মিনিট শুনানি হয়। শুনানি শেষে আদালত মামলাটি থানায় রেকর্ড করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১৮ সালে সৈয়দ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ দুদকের উপপরিচালক পদ থেকে অবসর নেন। তিনি চান্দগাঁও থানা এলাকায় বসবাস করতেন। সেখানে স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে তার জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। এর জের ধরে গত ২৯ আগস্ট রনি আক্তার তানিয়া নামে এক নারী শহীদুল্লাহ ও তার শ্যালক মোহাম্মদ কায়সার আনোয়ারের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আদালত মামলার শুনানি শেষে ওইদিন আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। ওই সমন সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী হারুন অর রশীদ গোপন করে ফেলেন। ফলে আসামিরা সমন পাননি। আদালত মামলার পরবর্তী তারিখে দুই আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। চান্দগাঁও থানা পুলিশ গত ৩ অক্টোবর রাতে শহীদুল্লাহকে বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে। থানায় নেয়ার পর আসামিরা পরস্পরের যোগসাজশে শহীদুল্লাহকে নির্যাতন করেন। নির্যাতনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তার মৃত্যু হয়।
তথ্যসূত্র: রাইজিংবিডি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ