সৌদিতে প্রথমবার নারী ক্রু নিয়ে আকাশে উড়ল প্লেন

আপডেট: মে ২২, ২০২২, ৬:৫২ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


সৌদি আরবের বেসামরিক বিমান চলাচলের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সব নারী ক্রু নিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করা হয়েছে। বিমানের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সৌদি আরবের মতো রক্ষণশীল দেশে এ পদক্ষেপ নারীর ক্ষমতায়নের জন্য একটি মাইলফলক।

মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে দেওয়া ঘোষণায় সৌদি বিমান সংস্থা ফ্লাইডিল জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার ফ্লাইটটি পরিচালনা করে তারা। ফ্লাইট ক্রুদের বেশির ভাগই সৌদি নাগরিক। এ বিমানের যাত্রা শুরু হয় এ৩২০ বিমানে করে। এর মধ্যে রিয়াদ থেকে জেদ্দায় উড়ে গিয়েছে ফ্লাইট ১১৭। দীর্ঘদিন বিমান ক্রুদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার করে আছেন পুরুষরা। তাদের সঙ্গে এখন পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন নারীরা।

ফ্লাইট ১১৭-তে ক্রু ছিলেন সাতজন। এতে সহ-পাইলট ছিলেন ইয়ারা জ্যান (২৩)। সৌদি আরবের সবচেয়ে কম বয়সী নারী পাইলট তিনি। ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি ফ্লাইট বিষয়ক স্কুল থেকে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেন। এক বছর আগে যোগ দেন ফ্লাইডিলে।

ইয়ারা জ্যান বলেন, এমন একটি মুহূর্তের অংশীদার হতে পেরে ভীষণভাবে গর্বিত। একজন সহ-পাইলট হিসেবে দায়িত্ব পালন করার অর্থ হলো নেভিগেশন, চেকলিস্টের মতো গুরুত্বপূর্ণ অনেক ভূমিকায় পাইলটকে সাহায্য করা। এ দায়িত্ব একজন সৌদি তরুণীর জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা তিনি অনুধাবন করতে পেরেছেন।

ফ্লাইডেলের মুখপাত্র এমাদ ইস্কান্দারানি বলেন, ফ্লাইটটি বৃহস্পতিবার রাজধানী রিয়াদ থেকে জেদ্দায় যায়। ফার্স্ট অফিসারসহ ফ্লাইটে দায়িত্ব পালন করা সাত সদস্যের ক্রুদের বেশিরভাগই ছিলেন সৌদি নারী। তবে ফ্লাইটের ক্যাপ্টেন ছিলেন বিদেশি।

এদিকে সব নারী ক্রু নিয়ে ফ্লাইডিলের ফ্লাইট পরিচালনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২০১৯ সালে, একজন নারী সৌদি কো-পাইলট দিয়ে প্রথম ফ্লাইট পরিচালনার কথা জানিয়েছিল দেশটি।
তথ্যসূত্র: গালফ নিউজ, আরব নিউজ, বাংলানিউজ