আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২২, ১:২৯ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক :


দৈনিক সমকালের রাজশাহী ব্যুরো অফিসের প্রথম ব্যুরো প্রধান ডা. মোজাহার হোসেন বুলবুল ওরফে বুলবুল হোসেন আর নেই। ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে বুধবার (০৯ ফে্ব্রুয়ারি) ভোরে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

তিনি দৈনিক যুগান্তর, দৈনিক সমকাল এবং পরবর্তীতে যায় যায় দিনের রাজশাহী ব্যুরো অফিসের প্রথম ব্যুরো প্রধান ছিলেন। একই সময়ে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবেও কর্মরত ছিলেন।

বুলবুল হোসেনের ভাগ্নে পাখি গবেষক ও পর্যটক অনু তারেক জানান, বুধবার ভোরে তিনি ঢাকায় মারা যান। ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে তিনি দীর্ঘদিন অসুস্থ হয়ে ছিলেন। মৃত্যুর আগে তিনি সেন্ট্রাল হাসপাতালে ডেপুটি ডাইরেক্টর হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

তার আগে সিভিল সার্জন হিসেবে নওগাঁ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এরও আগে ডাক্তার হিসেবে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ এবং নওগাঁর বিভিন্ন জায়গায় কর্মরত ছিলেন।

ঢাকার গ্রীনরোডের সেন্ট্রাল হাসপাতালে সকাল ১০টায় এবং বাদ আসর রাজশাহীর উপশহরের নূর মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরবর্তীতে রাজশাহীর হেঁতেমখা গোরস্থানে তাকে দাফন সম্পন্ন হবে।

বুলবুলের মৃত্যুতে রাসিক মেয়রের শোক
দৈনিক যুগান্তর, সমকাল ও যায়যায়দিনের রাজশাহী ব্যুরো অফিসের ব্যুরো প্রধান ডা. মোজাহার হোসেন বুলবুল (বুলবুল হোসেন) এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। বুধবার এক শোক বার্তায় এই শোক প্রকাশ করেন মেয়র।

শোক বার্তায় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীর সাংবাদিক অঙ্গনে বুলবুল হোসেনের অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন প্রকাশ করেন।

রাজশাহী প্রেসক্লাবের শোক
‘৭০ দশকে রাজশাহীর দাপুটে সাংবাদিক, রাজশাহী প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডা. মোজাহার হোসেন বুলবুলের মতৃ্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে রাজশাহী প্রেসক্লাব।

বুধবার সকালে প্রেসক্লাব সভাপতি সাইদুর রহমান ও সাধরাণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আসলাম-উদ-দৌলা যুক্ত এক বিবৃতিতে এ শোক প্রকাশ করা হয়। বিবৃতিতে রাজশাহী প্রেসক্লাব নেতারা বলেন, মোজাহার হোসেন বুলবুল চিকিৎসাপেশায় সম্পৃক্ত থাকলেও তিনি সাংবাদিকতা করেছিলেন ছাত্রজীবনে।

দৈনিক বার্তায় সাব-এডিটর হিসেবে সাংবাদিকতা শুরু হয় তার। এরপর দি বাংলাদেশ অবজারভার‘র রাজশাহী করেসপনডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ডা. বুলবুল দৈনিক ইত্তেফাক, যুগান্তর, সমকাল ও যায়যায়দিনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেছেন। রাজশাহীতে পিছিন্ন পড়া সাংবাদিকতাকে এগিয়ে নিতে তার বেশ অবদান ছিল।

তিনি ১৯৮১ সালে রাজশাহী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে কৃতিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। তার মৃত্যুতে সাংবাদিকতা এবং চিকিৎসাপেশার অপূরণীয় ক্ষতি হলো। ডা. বুলবুলের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনাও জ্ঞাপন করেন রাজশাহী প্রেসক্লাব নেতারা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ